লেখা

আমার প্রভুর বানী
আমার প্রভুর বানী
১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫

তোমাকে কাব্য বলি, অথবা বিধান ভেবে প্রাসঙ্গিক হই
শিরায় আরোগ্য ঢেলে জন্মান্ধকে  দেখিয়েছ পথ
যে "কবি" গড়েছে তব, করি তার আশ্চর্য শপথ
তুমি কি সঙ্গী নও, অন্তরের কাছাকাছি কেউ
ঐশী আহবান যেন তৃষ্ণার্তের পথ্য মারেফত
যতই তোমাকে ভাবি, ততোধিক তৃষ্ণা কেন বাড়ে
শুদ্ধতার শরাব হয়ে আত্মার আশিস যেন কাড়ে
আমার হৃদয় মাঝে ঢেলে দিলে কি অমেয় সুধা
সম্মুখে স্বচ্ছ পথ কেটে যায় অর্বাচীন দ্বিধা
তুমিতো সমুদ্র নও, সমুদ্রের চেয়েও অধিক
গহীনে যতই যাই তৃষাদীর্ণ হই ততোধিক
খুলে দিলে যেন তুমি চেতনার আশ্চর্য দুয়ার
ওপারে হেলান দিয়ে বসে আছে বিশ্বাস অপার
আমার প্রভুর বানী, আমাতে তুলেছ আলোড়ন
তোমার ভেতরে আজো অবিরত আত্মার ভ্রমণ
তোমার ব্যপ্ততা মাঝে হন্যে হয়ে আমি বারবার
খুঁজে ফিরি আজো যেন দুয়ারের ওপারে দুয়ার