লেখা

এই যে, তুমি!
এই যে, তুমি!
২৫ জানুয়ারি ২০১৬

খবরের পাতা উল্টেই আমি প্রথম তোমার খবর খুঁজি।

আজ নতুন করে কতভাবে শিরোনাম হলে তুমি?

আর কতরকম শ্বাসরুদ্ধকর মিশনে ছিল তোমার নাম?

দিন দিন তুমি হয়ে উঠছো সশ্রম কারাদন্ডপ্রাপ্ত 

দাগী আসামীর চেয়েও ভয়ানক!

প্রশাসনের মাথাব্যাথার কারণ।

তোমার ঔদ্ধত্যে বেচারাদের

রাক্ষুসে পোশাকের ইজ্জত এবার গেল বলে!

 

এই যে তুমি!

তোমার কেবল মনে থাকে

ক'টা মিছিল-মিটিং সামনে আছে,

কেউ যে তোমার পথ চেয়ে থাকে

সে কথা মনে পড়ে?

তুমি বলো, 

"যৌবন আমি দান করিনি কাউকে,

বিপ্লব আমার তারুণ্যের উষ্ণতাকে অধিকার করে নিয়েছে।"

সে যাই হোক, সে বড় কঠিন কথা।

অত আমার বুঝে আসেনা।

আমি তো কেবল বিস্ময় চোখে তাকিয়ে দেখি,

তোমার ছায়ার তলে এত মানুষের আশ্রয়!

তুমি যেন দিন দিন হয়ে উঠছো মহীরুহ!

 

আচ্ছা, তুমি কি তোমাকে ভুলে যাচ্ছো?

তুমি কি ভুলে যাচ্ছো যে, 

একদিন রঙ পেন্সিল দিয়েই রঙ করতে

তোমার সমস্ত স্বপ্নদের!

আর এখন রাজপথ জুড়ে তাজা খুন বিছিয়ে 

স্বপ্নদের রঙ করতে তুমি কোথা থেকে শিখলে! 

 

৩০.০৬.১৪

রাত-৩.০০

মিরপুর, ঢাকা। 

সুমাইয়া তাসনিম